কোন সময় থেকে বিদেশে পড়তে যাওয়ার প্রস্তুতি নেয়া ভালো?

Posted At: Oct-13-2019    Posted By: Education Hub Desk

Blog Image

অনেকেরই দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন হচ্ছে বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করে দেশের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করা। জ্ঞান অর্জনের জন্য সুদূর চীন পর্যন্ত যাওয়ার কথাও বলা হয়েছে। এ যুগে চীন নয়, শিক্ষার জন্য পৃথিবীর অপর প্রান্তেও যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা। কিন্তু প্রত্যেক দেশেই পড়াশোনার রয়েছে আলাদা কিছু নিয়ম-কানুন। আলাদা কিছু যোগ্যতা। বাংলাদেশ থেকে সেসব দেশে পড়তে গেলে যোগ্যতাগুলো নিয়েই যেতে হয়। যারা বিদেশে পড়তে যেতে চান তাদের জন্যই আজকের এই আয়োজন।

কেনো যাবোঃ বিদেশে কেনো পড়তে যাবো, এই প্রশ্নটা আগে নিজেকে করা উচিত। যদি উত্তর হয় চাকরিক্ষেত্রে বাড়তি লাভ কিংবা সিভিটা একটু ভারী করা, তাহলে বিদেশে পড়তে যাওয়া আপনার জন্য নয়। আমাদের দেশের মানুষেরা ভাবেন, এইচএসসি পাশ করেই আন্ডার গ্রাজুয়েশনের জন্য নিজেদের সন্তানদের বিদেশে পড়াতে পাঠিয়ে দেওয়াই হলো সঠিক সিদ্ধান্ত। আবার অনেকেই দেশের কোনো পাবলিক ইউনিভার্সিটিতে চান্স না পেয়ে দেশের বাইরে পড়ার সিদ্ধান্ত নেন। যদি বিদেশে যেতেই হয় তাহলে এইচ.এস.সি বা ইন্টার শেষ করে সময় নষ্ট না করেই বিদেশে যাওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া ভালো, সেক্ষেত্রে পারমানেন্ট রেসিডেন্সির জন্য আবেদন করা সহজ হয়। বিদেশে যেহেতু পড়াশুনার পাশাপাশি পার্ট-টাইম কাজ করার সুযোগ থাকছে, ছাত্রছাত্রীরা তাদের খরচের অনেকটাই উঠিয়ে ফেলতে পারছে।

কেউ যদি দেশে ব্যাচেলর শেষ করে মাস্টার্স এর জন্য বিদেশে যেতে ইচ্ছুক হয় তাদের জন্য পড়াশুনার পাশাপাশি কাজ করার সুযোগ তো থাকছেই, সেই সাথে, পড়া শেষ করে চাইলে পারমানেন্ট রেসিডেন্সির জন্যও আবেদন করতে পারবে।

বাংলাদেশ থেকে বেশিরভাগ ছাত্রছাত্রী ই বৃত্তি নিয়ে বাইরে পড়তে যান। কেউ স্নাতক পড়ার সময়ে ক্রেডিট ট্রান্সফার করেন। কেউবা স্নাতকোত্তর অথবা পিএইচডি করতে যান। তবে আপনি যে কোর্সের জন্যেই যান না কেন, আপনাকে অনেক আগে থেকেই প্রস্তুতি নিতে হবে। যারা স্নাতকোত্তর করার জন্য বাইরে যেতে চাচ্ছেন, তাদের সিজিপিএ 3.50 এর যত উপরে থাকবে তত ভালো।

দেশে পড়াশুনাকালীণ সময়েই বিদেশে পড়াশুনার প্রস্তুতি নিয়ে রাখা ভাল। কারণ, এমন হতে পারে যে, দেশের কলেজ কিংবা ইউনিভার্সিটিতে পড়তে পড়তেই বিদেশের কোন কলেজে কিংবা ভার্সিটিতে পড়তে যাওয়ার সুযোগ মিলে যেতে পারে। তখন যাতে হা-হুতাশ করতে না হয়, হাতের কাছে সবকিছু সহজেই পাওয়া যায় এবং আনন্দের সঙ্গেই বিদেশে পড়তে যাওয়া যায়, তাই পূর্ব প্রস্তুতির প্রয়োজন। সুতরাং, বিদেশে পড়তে যাওয়ার অনেক আগে থেকেই ভালভাবে তৈরি হয়ে থাকা উচিৎ, যাতে সুযোগ এলেই তার সদ্ব্যবহার করা যায়। এই ক্ষেত্রে কিছু বিষয় মাথায় রাখা দরকারঃ

১. পড়াশোনার মাধ্যমে নিজেকে প্রস্তুত করাই হচ্ছে প্রথম কাজ। শুধু মাত্র পরীক্ষায় ভালো ফলাফল নয়, সত্যিকার শিক্ষাটাই কাজে আসবে এখানে।

২. ইংরেজিতে দক্ষতা থাকতে হবে।

৩. তবে চীন, জাপান, জার্মানি, ফ্রান্স- এসব দেশে যেতে চাইলে সেসব দেশের ভাষাটা শিখে নেওয়া ভালো।

৪. শিক্ষাগত যোগ্যতার সব সার্টিফিকেট ইংরেজি করে নিতে হবে।

৫. পাসপোর্টে যেন কোনো সমস্যা না থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

৬. GRE, SAT, GMAT, IELTS/UKVI IELTS, TOFEL, PTE. OET-এ সকল টেস্টে স্কোর যতটা সম্ভব ভালো করতে হবে।

৭. যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চাচ্ছেন তার খরচ বহন করা আপনার পক্ষে সম্ভব কি-না, সেটাও মাথায় রাখুন। এটি আপনার মতো কর্তৃপক্ষের কাছেও গুরুত্বপূর্ণ।

 

 তাই, বিদেশে গিয়ে পড়াশুনা করার জন্যে সঠিক প্রস্তুতি নিতে আমাদের কিছু টিপস অনুসরণ করুন। এটা এ জন্যে যে, সকল সম্ভাবনার জন্য তৈরি থাকতে পারেন এবং নিরাপদে বিদেশে গিয়ে পড়াশুনা করতে পারেন।

 


Event Image

Event Image